আসল মালিক কে ? কার কতটুকু জমি টিকবে ?

Question

আসসালামু-আলাইকুম. ……………অগ্রিম ধন্যবাদ।
মনসুর সাহেব তার পিতার বিক্রি করা ২৭৫ নং দাগের সম্পুর্ন ৩৯ শতাংশের ১৯‌‌‍. ৫ শতাংশ জমি তার স্ত্রী ময়না বেগম এর নামে এবং ১৯.৫ শতাংশ ভাতিজা রহিমের নামে ক্রয় করে আনলেন। কয়েক বছর পর কোনো এক অজানা কারনে তার স্ত্রীকে তিনি তালাক দিয়ে বিদায় করেন। উল্লেখ্য যে মনসুর সাহেব এর ৪ কন্যা এবং কোনো ছেলে সন্তান নেই। তাই তিনি তার পৈএিক এবং সারা জীবনে ক্রয় করা সকল সম্পত্তি মেয়েদের নামে সাফ কবলা দলিল করে লেখে দিয়ে যান। দলিল করার সময় তার জমায় ২৭৫ নং দাগ ও দলিলে উল্লেখ করেন। কিছু দিন পর তিন বোন পৃথক পৃথক দলিল করে বড় বোন এর নামে লিখে দেন। সম্পত্তির বিবরনীতে ২ জনের দলিলে উল্লেখ করা “আমি পৈএিক ওয়ারিশ সুত্রে মালিক” আর একজনের দলিলে লেখা ” মনসুর সাহেব কতৃক রেজিষ্ট্রেশন কৃত কবলা মুলে খোশ-খরিদ সুত্রে মালিক” এখানে কেউ ই কবলা কৃত দলিল নাম্বার দেই নাই। এবার আসল ঘটনায় আসা যাক……
১.১) বড় বোন প্রথমে ২৭৫ দাগে ১০ শতক বিক্রি করল জামাল সাহেবের কাছে “আমি পৈএিক ওয়ারিশ সুত্রে ও খোশ-খরিদ সুত্রে কবলা মুলে এবং মাতৃ ওয়ারিশ সুত্রে মালিক “
 ১.২) আবার বড় বোন + বড় বোনের শ্বামী (মামাতো ভাই) ২৭৫ দাগে ১৬ শতাংশ বিক্রি করে ফরিদ সাহেবের কাছে “পৈএিক ওয়ারিশ সুত্রে ও খোশ-খরিদ সুত্রে কবলা মুলে মালিক”
 ২) ৩ বোন আবার বিক্রি করল ২৭৫ দাগে ৯.৭৫ শতাংশ চাচাতো ভাই রহিমের নিকট “পৈএিক ওয়ারিশ সুত্রে ও খোশ-খরিদ সুত্রে কবলা মুলে এবং মাতৃ ওয়ারিশ সুত্রে মালিক”
………………………………………………
এখানে ৪ কন্যা যার ফলে ওনাদের মামারা মালিক হবে ৬.৫ মামা ৩ জন। তাই একজন ২.১৭ শতাংশ করে পায় কিন্তু মামাতো ভাই/বোন ২০+ জন হওয়াতে তারা অই সম্পত্তি দাবি করে না এবং বিক্রি ও করে না। অন্যদিকে ৪ কন্যা মালিক হবে ১৩ শতাংশের। ১ কন্যা ৩.২৫ শতাংশ করে।
আমার হিসাবে ঃ-
১) জামাল সাহেব ৩.২৫
 ২) ফরিদ সাহেব ২.১৭ / ৬.৫০
৩) রহিম সাহেব ২৯.২৫
(বিঃদ্রঃ মায়ের ওয়ারিশ হিসেবে)
উল্লেখ্য যে মনসুর যেই সম্পত্তির মালিকানা দেখাইছিল (৯০ শতাংশ) তার কেনা ৪০ শতাংশ জমির মালিক ভুল ছিল তাই ফরিদ সাহেবের পক্ষের লোকেরা বলে বা বুঝাতে চায় বাবার ওয়ারিশ আর মায়ের ওয়ারিশ ত একই । ৩ কন্যা তাদের বড় বোনের নামে যখন পৈএিক কবলা মুলে সকল সম্পদ লিখে দেয় তখন নাকি মায়ের সম্পদ ও চলে যায়। তাদের হিসাব ঃ- ১) জামাল সাহেব ১০ ২) ফরিদ সাহেব ১৬ ৩) রহিম সাহেব ১৯.৫
আমার প্রশ্ন হচ্ছে –
১) এইটা কি সম্ভব পিতা কতৃক কবলা করে কেনা সম্পত্তি নিজের বোনের কাছে বিক্রি করার পর যদি দেখা যায় কবলা মুলে প্রাপ্ত সম্পত্তির কিছু অংশ টিকবে না, তখন মায়ের ওয়ারিশ থেকে প্রাপ্ত সম্পত্তি automatically ক্ষতিপুরন হিসেবে যোগ হবে। এইটা সঠিক?
২)নাকি ৩ বোন পৈএিক সম্পত্তি বিক্রি করার পর আবার মায়ের কেনা সম্পত্তির ওয়ারিশ দেখিয়ে অন্য কারো কাছে বিক্রি করা সঠিক?
৩) বাপ চাচার যদি ফুফাত বোনের ৬.৫ শতাংশ জমির মালিক হয় এবং অইটা যদি কেউ দাবি না করে আমি একাই কি পুরটা বিক্রি করতে পারব?
৪) আপনার হিসেবে সর্বশেষ কে কতটুকুর মালিক?

0
Anonymous 1 month 0 Answers 28 views 0

Leave an answer

Browse
Browse